পুরুষদের জন্য স্বর্ণ/রেশমী কাপড় ব্যবহার করা

সকল মুসলমানের উদ্দেশ্যে ভাষণের সময় মহানবী সল্লাল্লহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম দুই হাতে দুটো সামগ্রী অর্থাৎ এক হাতে স্বর্ণ ও অপর হাতে রেশমি কাপড় নিয়ে বলেছেন যে, “এই দুইটি সামগ্রী তোমাদের পুরুষদের জন্য হারাম করা হয়েছে”। সে হিসাবে পুরুষদের জন্য সর্বাবস্থায় স্বর্ণ ব্যবহার করা হারাম। কিছু আলেম ফতোয় দিয়ে থাকেন যে, একজন পুরুষ মানুষ চার আনা পরিমাণ স্বর্ণের একটি আংটি ব্যবহার করতে পারবে। জানা নেই যে উনারা এই সকল বানোয়াট মাসয়ালা কোথায় থেকে আমদানি করেন।

তাদের যুক্তি হল, রাস্তা-ঘাটে চলাচলের সময় হটাৎ করেই যখন সে কোন সমস্যায় পরবে, তখন এই আংটিটি বিক্রি করে সে তার চাহিদা পূরণ করবে। আমাদের লক্ষ্য রাখা উচিৎ যে, সাহাবী (রা:) গন এই ধরনের আংটি কখনো ব্যবহার করেছেন কি-না। তাঁদের সময় মানুষ দরিদ্র থাকলেও স্বর্ণটা একটা সাধারণ জিনিস ছিল। অতএব তাঁরা কখনও যদি চারি আনা পরিমাণের স্বর্ণ ব্যবহার করে থাকেন, তাহলে আমাদের জন্যও তা ব্যবহার করা জায়েজ। আমার জানা মতে স্বর্ণ নামক সামগ্রী কোন একজন সাহাবী (রা:) ব্যবহার করেছেন, এই ধরনের কোন তথ্য হাদিস কর্তৃক বর্ণিত হয়নি।

বাংলায় যাকে বলে রেশম, ইংরেজিতে তাকেই বলে সিল্ক। তার পরও কিছু মানুষ আছে যারা মনে করেন যে, সিল্ক হল আলাদা জিনিস আর রেশম হল আলাদা। রেশম হল পোকার গুটি আর সিল্ক হল অন্য কিছু। বিশেষ করে যখন ঈদের সময় আসে তখন পুরুষ মানুষের কাছে সিল্কয়ের পাঞ্জাবীর একটা বিশেষ কদর দেখা যায়। সাবধান! মহানবী সল্লাল্লহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যে বিষয় সম্বন্ধে সরা-সরি হারাম ঘোষণা দিয়েছেন, তা ব্যবহার করার কোন ইচ্ছা বা স্পর্ধা দেখাবেন না। যদিও উত্তম বিষয়টি মহান আল্লহ রব্বুল আলামীনই ভাল জানেন, তারপরও এ বিষয়ে আরও অধিক জানার জন্য ইন্টারনেট মাধ্যমে নীচের ওয়েব সাইট ভিজিট করুন:

http://www.islamqa.com/en/ref/3011/gift 

http://www.islamicity.com/qa/action.lasso.asp?-db=services&-lay=Ask&-op=eq&number=2032&-format=detailpop.shtml&-find 

http://www.islam-qa.com/en/ref/652/use%20of%20gold%20and%20silk

http://en.allexperts.com/q/Islam-947/2009/1/Gold-Islam.htm

 

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *