বক্সিং খেলা বা মুখে আঘাত করা

বক্সিং খেলা মানেই হল মুখে আঘাত করা, যাতে পয়েন্ট পাওয়া যায় সব থেকে বেশি। মহান আল্লহ রব্বুল আলামীন পাক কালামে চারিত্রিক ত্রুটি জনিত ঘটনায় স্ত্রীকে তালাক দেয়ার পূর্বে তিনটি ধাপ রেখেছেন। তার তৃতীয় নাম্বার ধাপ হল প্রহার করা। তাফসীরের বর্ণনায় সেমতাবস্থায়ও স্ত্রীর মুখে আঘাত করতে নিষেধ করা হয়েছে। মহান আল্লহ রব্বুল আলামীন বলেছেন, “মানুষকে সর্বোত্তম সুরতে (আকৃতিতে) সৃষ্ট করা হয়েছে”। মানুষের মুখ বাদ দিলে আর তাকে বাহ্যিক-ভাবে চেনার মত কিছুই থাকেনা। মুখের কোন চিহ্ন ঢেকে রাখার বা আড়াল করার মত ব্যবস্থাও নেই। শত কাপড়-চোপড় পরলেও মুখ বা চেহারাকে খোলাই রাখতে হয়। শুধু মাত্র মুখের মাধ্যমেই আমরা এই কে অপরকে চিনে থাকি। অতএব শরীরের সর্ব শ্রেষ্ঠ অংশ তথা অবয়বে বক্সিং, কারাটে অথবা যে কোন উছিলায় আঘাত করাকে ইসলাম হারাম ঘোষণা করেছে। অনেক সময় পিতা-মাতা বা অন্য বড়-গন ছোটদেরকে বিভিন্ন ভাবে শাসনের উছিলায় গালে/মাথায় চড় মেরে থাকে, তারাও এই তালিকারই অন্তর্ভুক্ত। তাছাড়া বিজ্ঞানও প্রমাণ করেছে যে, মানুষের মাথায় আঘাত করলে তার স্মরণ শক্তি নষ্ট হয়ে যায়। যদিও উত্তম বিষয়টি মহান আল্লহ রব্বুল আলামীনই ভাল জানেন, তারপরও এ বিষয়ে আরও অধিক জানার জন্য ইন্টারনেট মাধ্যমে নীচের ওয়েব সাইট ভিজিট করুন:

http://www.islamqa.com/en/ref/10238/gift 

You may also like...

3 Responses

  1. 30/07/2018

    […] নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও দুনিয়াবি জৌলুসের জন্য কাফের-মুশরিকদের তৈরি জায়নামাজকে […]

  2. 14/09/2018

    cialis great britain http://vioglichfu.7m.pl/

    Cheers! Lots of data.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *